সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯

পুলিশের ব্যাংকের যাত্রা শুরু

নিউজ ডেক্স: বুধবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ব্যাংকটির কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করে তিনি বলেন, “অর্থনৈতিক উন্নতি করতে হলে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। এই শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব পুলিশের। আমি আশা করি, যে আন্তরিকতার সাথে আপনারা দায়িত্ব পালন করছেন সেভাবে দায়িত্ব পালন করে যাবেন যেন আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি।”

পুলিশের জন্য বিশেষায়িত নতুন এই ব্যাংক নিয়ে দেশে বাণিজ্যিক ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৯টিতে। পদাধিকার বলে কমিউনিটি ব্যাংকের প্রথম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

পুলিশ সদস্যদের জীবনমানের উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, “আমরা সব সময় চেষ্টা করেছি আমাদের পুলিশ বাহিনী, যতটুকু সম্ভব তাদের পরিবার পরিজন যাতে সুস্থ থাকতে পারে। সে কারণেই আমি ট্রাস্ট (পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট) গঠন করে দিয়েছিলাম।

“পাশাপাশি তাদের যদি কোনো সাহায্য প্রয়োজন হয় শিক্ষা বা চিকিৎসার জন্য, সে সুবিধাটা এই ট্রাস্ট থেকে করে দিয়েছি। এবার আমরা ব্যাংক করে দিলাম।”

এর আগে সশস্ত্র বাহিনী, বিজিবি ও আনসার-ভিডিপিকে ব্যাংক দেওয়ার কথা মনে করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, “পুলিশ বাহিনীর জন্য বাকি ছিল, সেটাও করে দিলাম।”

সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করে যাওয়ায় পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে পুলিশ ‘যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয়’ দিচ্ছে। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে, এ অভিযান আরও জোরদার করতে হবে।

“রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন আসে, মনুষ্য সৃষ্ট দুর্যোগও আসে, যে দুর্যোগগুলো আমরা মোকাবেলা করে থাকি। সেক্ষেত্রে পুলিশ বিশেষ ভূমিকা পালন করে।”

মানুষকে সেবা দেওয়ার পাশাপাশি প্রত্যেকটি থানা যাতে সুন্দর থাকে, তা নিশ্চিত করার তাগিদ দেন সরকরপ্রধান। পুলিশকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষণের উপরও গুরুত্ব দেন।

শেখ হাসিনা বলেন, পুলিশ বাহিনী ‘দক্ষতার সঙ্গে’ দায়িত্ব পালন করায় মানুষের একটি ‘আস্থা, বিশ্বাসের জায়গা’ সৃষ্টি হয়েছে। কমিউনিটি পুলিশিং জোরদার করতে পারলে শান্তি, নিরাপত্তা আরো নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিহুল হক চৌধুরী জানান,প্রাথমিকভাবে রাজধানীর পুলিশ প্লাজা কনকর্ডের করপোরেট শাখার পাশাপাশি মতিঝিল, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, হবিগঞ্জ ও চট্টগ্রামে ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।

৪০০ কোটি টাকা অনুমোদিত এবং ১০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন নিয়ে গঠিত কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন পায়। ওই বছরের ১ নভেম্বর ব্যাংকটি তফসিলি ব্যাংক হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়।

অন্যদের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ কমিউনিটি ব্যাংকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখক সম্পর্কে জানুন

এই রকম আরও সংবাদ

1 মন্তব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *